ইসলাম ও আমাদের জীবন

বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

ইসলাম ও আমাদের জীবন - বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

শিশুদের সুন্দর জীবন গঠনে পিতা-মাতার ভূমিকা

শিশুদের সুন্দর জীবন গঠনে পিতা-মাতার অবদান অনস্বীকার্য। পিতা-মাতা যেভাবে তাকে গড়ে তোলেন সেভাবেই তারা গড়ে ওঠে। শিশুরা নিষ্পাপ। তারা ফুলের মত। তারা পিতা-মাতার চক্ষু শিতল করার নিয়ামক। আমাদের প্রিয় নবী (স.) শিশুদের খুব ভালোবাসতেন। তিনি একটি হাদীসে বলেছেন, ‘প্রত্যেক মানব শিশু ইসলামী ফিতরাতের ওপর জন্মগ্রহণ করে’। এরপর তার পিতা-মাতা, পরিবার তাকে যেদিকে নিয়ে যায়, সে ঐদিকেই চলে যায়।

বিস্তারিত পড়ুন …

হজ ও উমরাহ : আমলের ফজিলত

মুমিন বান্দার প্রতি আল্লাহ তায়ালার বিশেষ অনুগ্রহ এই যে, তাকে এমন কিছু ইবাদত তিনি দান করেছেন যা দ্বারা বান্দা তার রুহানি তারাক্কী, কলবের সুকুন ও প্রশান্তি এবং দুনিয়া-আখিরাতের খায়র ও বরকত লাভ করে থাকে। এসবেরই একটি হলো হজ। আল্লাহ তায়ালা বান্দাকে বাইতুল্লাহর হজ করার নির্দেশ দিয়েছেন যেন এর মাধ্যমে তারা গুনাহ থেকে পাকসাফ হয় এবং জান্নাতে উচ্চ মর্তবা ও মাকাম লাভ করে।

বিস্তারিত পড়ুন …

হজ : বিশ্ব মুসলিমের ভ্রাতৃত্ববন্ধনের প্রতীক

হজ আল্লাহপ্রেম ও বিশ্ব মুসলিমের ভ্রাতৃত্ববন্ধনের অন্যতম পথ। এটি আল্লাহর নির্দেশিত এমন একটি ফরজ বিধান, যা ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ একটি স্তম্ভ এবং ইসলামের অপরাপর বিধান থেকে স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যের অধিকারী। হজে আর্থিক ও কায়িক শ্রমের সমন্বয় রয়েছে, যা অন্য কোনো ইবাদতে একসঙ্গে পাওয়া যায় না। হজ সারা বিশ্বের মুসলিম উম্মাহর ঐক্য, সংহতি ও সাম্যের প্রতীক। এ লক্ষ্যেই পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হচ্ছে—‘পবিত্র কাবা শরীফের হজ করা সব মুসলমানের কর্তব্য, যারা সেখানে যাওয়ার ক্ষমতা রাখে।’ (আলে ইমরান : ৯৭)

বিস্তারিত পড়ুন …

সুরা বাকারার ফজিলত

সুরা বাকারা মদিনায় অবতীর্ণ হয়েছে। আয়াত সংখ্যা হলো ২৮৬টি, কোরআন শরীফের দ্বিতীয় এবং সবচেয়ে বড় সুরা। এই সুরা প্রথম পারা থেকে শুরু করে তিন নম্বর পারার আট পৃষ্ঠায় গিয়ে শেষ হয়েছে। ইসলামের মৌলিক নীতি, বিশ্বাস ও শরিয়তের বিধিবিধানের যতটুকু বিস্তারিত বর্ণনা সুরা বাকারায় করা হয়েছে, ততটুকু আলোচনা অন্য কোনো সুরায় করা হয়নি। এই সুরার মধ্যে আয়াতুল কুরসি নামে যে আয়াতখানা তা কোরআনের অন্য সব আয়াত থেকে উত্তম এবং শেষের যে দুইখানা আয়াত আছে সেটাও মহান আল্লাহর বিশেষ রহমতের ভাণ্ডার থেকে দেয়া হয়েছে।

বিস্তারিত পড়ুন …

মুসলমানের প্রতি মুসলমানের অধিকার

সহিহ মুসলিম শরীফে একটি হাদিস বর্ণিত হয়েছে : “হজরত আবু হুরায়রা (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুলে কারিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ইরশাদ করেছেন, প্রত্যেক মুসলমান অন্য মুসলমানের ভাই। তার ওপর ওয়াজিব সে যেন অন্যের ওপর কোনো জুলুম-অন্যায় না করে এবং তাকে (যখন সাহায্যের প্রয়োজন হয় তখন) বন্ধুহারা ও সাহায্যকারী ছাড়া ছেড়ে দেবে না। তাকে নিকৃষ্ট মনে করবে না। তার সঙ্গে নিকৃষ্টতার, হীনতার আচরণ করবে না। এরপর মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তিনবার নিজের সিনার প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, ‘তাকওয়া’ এখানে হয়ে থাকে (অর্থাত্ হতে পারে তুমি কাউকে তার বাহ্যিক অবস্থা প্রত্যক্ষ করে সাধারণ মানুষ ভেবে থাকতে পার; কিন্তু সে নিজ অন্তরের তাকওয়ার ফলে আল্লাহর কাছে সম্মানী। এজন্য কখনও মুসলমানকে হীন-নিকৃষ্ট ভাববে না)।

বিস্তারিত পড়ুন …

গরিবের পাশে দাঁড়াই

বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ দরিদ্র এবং মানবেতর জীবনযাপন করে অনাহারে-অর্ধাহারে দিন গুজরান করে। শুধু ঢাকা শহরের বস্তিগুলো ও রাস্তার পাশে পড়ে থাকা মানুষের দিকে তাকালেই দেখা যায়, তাদের অধিকাংশের পেটে অনাহারের আগুন দাউ দাউ করে জ্বলছে। অন্ন, বস্ত্র ও বাসস্থানের মতো মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত তারা। ক্ষুধার তাড়নায় নিরুপায় হয়ে ডাস্টবিনের ময়লাযুক্ত পচা খাবার গলাধঃকরণ করে।

বিস্তারিত পড়ুন …