ইসলাম ও আমাদের জীবন

বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

ইসলাম ও আমাদের জীবন - বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

হজ্জের নিয়মকানুন – এক নজরে হজ্ব ও ওমরাহ্

হজ্জের ফরজ ৩টি

১। ইহরাম বাধা ২। উ’কুফে আ’রাফা (আরাফাতের ময়দানে অবস্থান) ৩। তাওয়াফুয্ যিয়ারাত

হজ্জের ওয়াজিব ৬টি

(১) ‘সাফা ও মারওয়া’ পাহাড় দ্বয়ের মাঝে ৭ বার সায়ী করা।
(২) অকুফে মুযদালিফায় (৯ই জিলহজ্জ) অর্থাৎ সুবহে সাদিক থেকে সুর্যদয় পর্যন্ত একমুহুর্তের জন্য
হলেও অবস্থান করা।
(৩) মিনায় তিন শয়তান (জামারাত) সমূহকে পাথর নিপে করা।
(৪) ‘হজ্জে তামাত্তু’ ও ‘কি্বরান’ কারীগণ ‘হজ্জ’ সমাপনের জন্য দমে শোকর করা।
(৫) এহরাম খোলার পূর্বে মাথার চুল মুন্ডানো বা ছাটা।
(৬) মক্কার বাইরের লোকদের জন্য তাওয়াফে বিদা অর্থাৎ মক্কা থেকে বিদায়কালীন তাওয়াফ করা।
এছাড়া আর যে সমস্ত আমল রয়েছে সব সুন্নাত অথবা মুস্তাহাব।

বিস্তারিত পড়ুন …

জেনে নিন হজ ওমরাহ পালনের নিয়ম

যে ব্যক্তির এই পরিমাণ ধন-সম্পদ আছে যে, সে হজের সফর (পথখরচ) বহন করতে সক্ষম এবং তার অনুপস্থিতিকালীন তার পরিবারবর্গের প্রয়োজন মেটানোর মতো খরচও রেখে যেতে সক্ষম, এমন ব্যক্তির ওপর হজ করা ফরজ। অথবা এমন ব্যক্তি যে হজের মৌসুমে অর্থাত্ শাওয়াল মাস শুরু হওয়া থেকে সৌদি আরবে অবস্থানরত ছিল বা জিলহজ মাস পর্যস্ত সৌদি আরবে অবস্থান করতে থাকে এবং তার ওপর যদি কোনো বিধিনিষেধ, ওজর ও অসুবিধা না থাকে, তাহলে তারও হজ পালন করা ফরজ।

বিস্তারিত পড়ুন …

কীভাবে বাঁধবেন হজের ইহরাম

সেলাইবিহীন চাদর-লুঙ্গি পরিধান করে তালবিয়াহ্ পরাকে শরিয়তের পরিভাষায় ইহরাম বলা হয়। পুরুষ হাজীদের জন্য এই বিধান পালন করা ওয়াজিব। অবশ্য মহিলা হজ পালনকারীদের জন্য সেলাইবিহীন কাপড় পরিধানের বিষয়টি জরুরি নয়। শরিয়া বিধান অনুযায়ী তারা যে কোনো পোশাক পরিধান ও ব্যবহার করতে পারবে।

হজ পালনকারীদের জন্য একটি নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছে ইহরাম বাঁধা যেমন জরুরি একটি বিষয়, ঠিক তেমনি ইহরাম বাঁধার জন্য রয়েছে একটি নির্দিষ্ট সময়সীমা।

বিস্তারিত পড়ুন …