ইসলাম ও আমাদের জীবন

বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

ইসলাম ও আমাদের জীবন - বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

মানুষের পোশাক-পরিচ্ছদ

সৃষ্টির সেরা জীব মানুষ। সব কিছুতেই তার শ্রেষ্ঠত্ব থাকবে, থাকবে স্বাতন্ত্র্য, সৌন্দর্য আর বিশেষত্ব। জীব হিসেবে সব জীবের মধ্যেই একটা মৌলিক সামঞ্জস্য রয়েছে। যেমন প্রেম, বিরহ, বিচ্ছেদ, আকর্ষণ। এ ছাড়াও আছে খাদ্য, পানীয়, বেঁচে থাকার আকাক্সা, নিরাপত্তা ও সর্বপ্রকার জৈবিক চাহিদা। জীব হিসেবে সবার মধ্যেই এগুলো আছে। আর মানুষের মধ্যে অতিরিক্ত আছে লজ্জাশরম, ভালোমন্দের পার্থক্য বোঝার মতো জ্ঞান, ইনসাফ, ন্যায়নীতি, সামাজিক শৃঙ্খলা, আত্মসম্মানবোধ ও সুবিচারের অন্তঃকরণ।

বিস্তারিত পড়ুন …

তাওয়াক্কুল মুমিনের গুণ

তাওয়াক্কুল মুমিনের গুণতাওয়াক্কুল আরবি শব্দ। এর অর্থ হলো নির্ভর করা, ভরসা করা, আস্থা রাখা, নির্ভরশীলতা (আরবি বাংলা ব্যবহারিক অভিধান)। ‘তাওয়াক্কুল আলাল্লাহ’ অর্থ হলো আল্লাহ তায়ালার ওপর ভরসা করা। কোনো ব্যক্তিকে কোনো কাজের জিম্মাদারি প্রদান করা, প্রতিনিধি বানানো। পরিভাষায় যে কোনো প্রয়োজন কিংবা সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে মহান আল্লাহর ওপর পরিপূর্ণ নির্ভর করাকে তাওয়াক্কুল বলে। আল্লাহর ওপর ভরসা করার নানা পর্যায় রয়েছে। কেউ মুখে মুখে ভরসার কথা বলে, কেউ সুনির্দিষ্ট কিছু বিষয়ের ভরসা করে, কেউ-বা সর্বদাই সব কাজে আল্লাহর ওপর ভরসা করে। এটি তাওয়াক্কুলের সর্বোচ্চ পর্যায়।

বিস্তারিত পড়ুন …

ইসলামে শারীরিক পবিত্রতা

ইসলামে শারীরিক পবিত্রতাপবিত্রতা ঈমানের অঙ্গ। ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ বহু বিধান পালনে পবিত্রতা পূর্বশর্ত। পবিত্রতা অর্জন ছাড়া কোনো ইবাদতই আল্লাহ তায়ালার কাছে গ্রহণযোগ্য হয় না। কুরআন ও সুন্নাহে পবিত্রতার যথেষ্ট তাগিদ রয়েছে। সিয়া সিত্তাসহ অন্যান্য প্রায় সব হাদিসগ্রন্থে ‘কিতাবুত তাহারাত’ বা পবিত্রতা অধ্যায়টি শুরুতেই সন্নিবেশিত হয়েছে। কেননা ইসলামে পবিত্রতার গুরুত্ব অপরিসীম। শুধু তাই নয়, পবিত্রতা অর্জন করাকে আল্লাহ তায়ালার ভালোবাসা লাভের উপায় বলে কুরআন মজিদে উল্লেখ করা হয়েছে। ইরশাদ হয়েছে, ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ তায়ালা তাওবাকারী ও পবিত্রতা অর্জনকারীকে ভালোবাসেন।’ (সূরা বাকারা : ২২২)।

বিস্তারিত পড়ুন …

অজুর কল্যাণে …

অজুর কল্যাণে ...পূর্ণাঙ্গ ‘অজু’ পবিত্রতা অর্জনের উপায়। তবে আল্লাহর সন্তুষ্টির উদ্দেশ্যে মাসনুন তরিকায় অজু করা হলে তা একটি নেক আমলও বটে। এটি অতি সহজ আমল, যা আমরা সবাই করি এবং দিনে একাধিকবার করি। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে অজুর প্রয়োজন হয়। আমরা যদি একটু খেয়াল করে মাসনুন তরিকায় এই সহজ ও প্রয়োজনীয় আমলটি সম্পাদন করি তাহলে অতি সহজে আমরা পেতে পারি অনেক বড় বড় পুরস্কার। হাদিসে আছে হজরত ওমর ইবনুল খাত্তাব (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, তোমাদের মধ্যে যে কোনো ব্যক্তি অজু করে এবং পূর্ণাঙ্গভাবে অজু করে অতঃপর বলে—(অযু শেষের দোয়া) তবে তার জন্য জান্নাতের আটটি দরজা খুলে দেয়া হবে। যে দরজা দিয়ে ইচ্ছা, সে প্রবেশ করতে পারবে। (সহিহ মুসলিম, হাদিস ২৩৪; জামে তিরমিযি, হাদিস ৫৫)।

বিস্তারিত পড়ুন …

রোগীর সেবা-শুশ্রূষা বড় ইবাদত

রোগীর সেবা-শুশ্রূষা বড় ইবাদতরোগী দেখার আদব
রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম রোগীর শুশ্রূষার আদব বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন : ‘মান আদা মিনকুম ফালয়ুখাফফিফ’ অর্থাত্ যখন তোমরা কোনো রোগী দেখতে যাও তাহলে এ রকম যেন না হয় যে, তোমার যাওয়াতে রোগী কষ্ট পায়।

বিস্তারিত পড়ুন …