ইসলাম ও আমাদের জীবন

বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

ইসলাম ও আমাদের জীবন - বিভিন্ন সংবাদপত্র থেকে নেয়া কিছু লেখা …

হজ পালনে যা জানা জরুরি

জীবনে একবার হজ করা ফরজ আর তাও সচ্ছল সুস্থ ব্যক্তির জন্য। এ কারণে হজের নিয়ম ও মাসয়ালাগুলোকে জটিল মনে হয়। একজন সাধারণ মুসল্লির কাছে সূরা ‘কাফিরুন’কে সূরা ফাতিহার চেয়ে কঠিন মনে হয় এ কারণে যে, সূরা কাফিরুন সব নামাজে পড়তে হয় না বা পড়াও হয় না। আবার নামাজের মাসয়ালা বেশ কঠিন ও বিস্তৃত হওয়ার পরেও অব্যাহত প্রচেষ্টা ও দিনে পাঁচবার অনুশীলনের কারণে মাদরাসায় শিক্ষিত নয় এমন একজন স্বল্পশিক্ষিত সাধারণ নামাজিরও তা আয়ত্তে এসে যায়। কিন্তু হজের বিষয়টি ভিন্ন। যে স্বল্পসংখ্যক লোকের ওপর হজ ফরজ হয়, তাদের অনেকেই সাধারণ শিক্ষায় শিক্ষিত এবং বয়সের শেষভাগে হজের প্রাক্কালে এ চিন্তাভাবনা ও অনুশীলন শুরু করেন। তা ছাড়া তারা যে বইগুলো পড়েন এবং যাদের সাহায্য নেন সেখানে তারা ব্যাপক আলোচনা ও বিবিধ নতুন আরবি পরিভাষার সম্মুখীন হন।

বিস্তারিত পড়ুন …

জুমার দিনের ফজিলত

ইমাম অর্থ নেতা, অগ্রবর্তী ব্যক্তি, পথপ্রদর্শক, গুরু বা পরিচালক। শরিয়তের দৃষ্টিতে প্রাপ্তবয়স্ক সমাজের গ্রহণযোগ্য সম্মানিত সৎ সাহসী ব্যক্তি, যার কুরআন তেলাওয়াত সহি-শুদ্ধ, যিনি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ জামাতের সাথে আদায় করেন ও নামাজের মাসয়ালা-মাসায়েল জানা দ্বীনদার মুত্তাকি, যার কুরআন, সুন্নাহ ও ফিকহের মৌলিক ধারণা আছে ও সমাজকে নেতৃত্ব দানে সক্ষম; তিনিই মুসলিম সমাজের ইমাম হবেন ও মসজিদে নামাজের ইমামতি করবেন।

বিস্তারিত পড়ুন …

সালাতের মাধ্যমে অর্জন

আদর্শ সমাজ ও রাষ্ট্র গঠনে নামাজ বা সালাতের গুরুত্ব অপরিসীম। একজন ভালো ও দক্ষ শিক্ষককে যেমন পিটিআই, বিএড এবং এমএড প্রশিক্ষণ দিয়ে শিক্ষকতা জীবনে পেশাদারিত্ব অর্জন করতে হয়। দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সেনাবাহিনীকেও প্রতিদিন দৈহিক কসরত করে ফিজিক্যাল ফিটনেসসহ যুদ্ধাস্ত্র চালানোর সব প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজেকে যোগ্য করে নিতে হয়। এমনিভাবে রাষ্ট্রের প্রায় সব বিভাগে সব সেক্টরেই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা আছে। এসব প্রশিক্ষণ নিয়ে তারা তাদের পেশাদারিত্ব দেখিয়ে প্রমোশন নিয়ে থাকেন। কিন্তু যদি এমন হয়, প্রশিক্ষণ নিয়ে কর্মক্ষেত্রে ওই প্রশিক্ষণের কোনো প্রতিফল ঘটল না। অর্থাৎ বিএড বা এমএড ট্রেনিং নিলো কিন্তু শিক্ষকতা করল না, সেনাবাহিনীও যুদ্ধক্ষেত্রে নিষ্ক্রিয় থাকল, আইন পেশায় উচ্চতর ডিগ্রি নিলো, কিন্তু এই ডিগ্রিকে সে কাজে লাগাল না। তাহলে নিশ্চয়ই আপনারা তাকে দক্ষ সেনাকর্মকর্তা বা সেনাসদস্য, দক্ষ শিক্ষক কিংবা দক্ষ আইনজ্ঞ বলতে পারেন না। সালাতের বিষয়টিও ঠিক তেমনি।

বিস্তারিত পড়ুন …

চোগলখোরি আল্লাহর অপছন্দ

আমাদের সমাজে যত ধরনের পাপ রয়েছে, তার মধ্যে চোগলখুরি অন্যতম। অন্যান্য গুনাহ থেকে মানুষ বিবেকের তাড়নায় অনেক সময় বেঁচে থাকার চেষ্টা করে, কিন্তু চোগলখুরি থেকে মানুষ মোটেও সতর্কতা অবলম্বন করে না। অথচ চোগলখুরি মানুষের ঘৃণিত স্বভাব ও জঘন্য পাপ।

বিস্তারিত পড়ুন …

কুরআন-হাদিসে হজ

ইসলামের পাঁচটি রুকুনের মধ্যে হজ অন্যতম। হজ মানুষের প্রতি মহান আল্লাহ কর্তৃক ফরজকৃত একটি আর্থ-দৈহিক ইবাদত- যা সক্ষম ব্যক্তির ওপর সারা জীবনে কেবল একবারই ফরজ।

বিস্তারিত পড়ুন …

হজের মাসলা-মাসায়েল

হজ হচ্ছে ইসলামের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এটি আর্থিক ও শারীরিক ইবাদতও বটে। হজের আভিধানিক অর্থ হচ্ছে ইচ্ছা করা, সঙ্কল্প করা। শরিয়তের পরিভাষায় হজের মাসগুলোতে বিশেষ কিছু কার্য সম্পাদনের মাধ্যমে নির্দিষ্ট কিছু স্থানের জিয়ারত করাকে হজ বলে।

বিস্তারিত পড়ুন …

কুরআনের চর্চা হোক প্রতিদিন

প্রতিটি রমজান মাসে আমরা আনন্দের সাথে লক্ষ করি, বাড়িতে বাড়িতে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের পক্ষ থেকে প্রেরিত আসমানি কিতাব কুরআনুল কারিমের চর্চা হয়। কুরআনুল কারিমকে নিয়ে পর্যালোচনা হয়। মা আয়েশা সিদ্দিকা রা:-কে যখন জিজ্ঞেস করা হয়েছিল নবী করিম সা:-এর জীবনযাপন কেমন? তিনি উত্তর দিয়েছিলেন, ‘নবী করিম সা: হচ্ছেন জীবন্ত কুরআন’। অর্থাৎ মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের পক্ষ থেকে প্রেরিত কুরআনুল কারিমের প্রতিটি অক্ষর মহানবী সা: পালন করতেন।

বিস্তারিত পড়ুন …

হজের অবসরে

পবিত্র মক্কা-মদিনায় এমন কিছু জায়গা রয়েছে যেগুলোর এক দিকে রয়েছে ঐতিহাসিক গুরুত্ব, অন্য দিকে সেগুলোর সাথে জড়িয়ে আছে অসংখ্য নবী রাসূলের মহান স্মৃতি। পবিত্র কুরআনের মর্মবাণী উপলব্ধি ও ইতিহাসকে নিখুঁতভাবে বোঝার জন্য এসব জায়গায় ভ্রমণ খুবই উপযোগী। তবে মনে রাখতে হবে, এ ভ্রমণ হজের কোনো আহকাম নয়।

বিস্তারিত পড়ুন …

ধর্মের অবমাননা করবেন না

কিছু ব্যক্তি নিয়মিতভাবে ইসলাম ধর্মের অবমাননা করে বক্তৃতা আর লেখালেখি করছেন। তারা নিজেদেরকে আধুনিক, প্রগতিশীল, মুক্তমনা ও নাস্তিক বলে পরিচয় দেন। মুক্তচিন্তা ও বাক স্বাধীনতার কথা বলে প্রধানত ইসলাম ধর্মের সমালোচনা করেন। তারা ব্লগে ইসলামি মূল্যবোধ, বিশ্বাস এবং এর বিধিবিধানকে কটাক্ষ করে লেখালেখি করেছেন। তারা এই মহাবিশ্বের সৃষ্টিকর্তা, পালনর্কতা এবং নিয়ন্ত্রণকর্তা মহান আল্লাহ এবং তার প্রেরিত মানবতার মুক্তিদূত, সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ রাসূল হজরত মুহাম্মদ সা:-কে কটাক্ষ, অবজ্ঞা ও অপমানিত করে থাকেন। একই সাথে তারা ‘পবিত্র’ নিয়ে অবাঞ্ছিত মন্তব্য করেন। ইসলাম অবমাননার কারণে ধর্মপ্রাণ মুসলমানের হৃদয় স্বাভাবিকভাবেই ক্ষতবিক্ষত।

বিস্তারিত পড়ুন …

ইসলামে মেহমান ও মেজবান

ইসলাম সব কিছুর আদব-কায়দা শিক্ষা দিয়েছে। ইসলামে মেহমান ও মেজবানেরও কিছু দায়িত্ব-কর্তব্য রয়েছে। যারা বেড়াতে যান তারা মেহমান, আর যাদের বাড়িতে যান তারা মেজবান। দাওয়াত খাওয়া ও খাওয়ানো দু’টিই সুন্নত। আন্তরিকতাপূর্ণ অনাড়ম্বর দাওয়াতের কথা ইসলাম বলেছে। দাওয়াত দিলে সাধ্যের বাইরে গিয়ে হলেও দামি খাবার খাওয়াতে হবে অথবা অবশ্যই উপহার নিয়ে যেতে হবে- এটা জরুরি নয়।

বিস্তারিত পড়ুন …